May 28, 2024, 3:44 am

ময়মনসিংহে যানজট ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে মাঠে মেয়র-ডিসি-এসপি

Reporter Name
  • আপডেট Saturday, April 1, 2023
  • 213 জন দেখেছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ :: পবিত্র মাহে রমজান ও আসন্ন ঈদে দ্রব্যমূল্য এবং যানজট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে একসঙ্গে কাজ করছে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক), জেলা প্রশাসন ও পুলিশ। শনিবার (০১ এপ্রিল) মসিক মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোস্তাফিজার রহমান, পুলিশ সুপার (এসপি) মাছুম আহাম্মদ ভুঞাসহ সড়ক ও জনপথ এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা নগরীর মেছুয়া বাজার ও যানজটের বিভিন্ন পয়েন্ট পরিদর্শন করেন। তারা বেলা ১১টায় পাটগুদাম ব্রিজ মোড়, পরে শম্ভুগঞ্জ মোড় এবং মাসকান্দা বাস স্ট্যান্ডে এবং দুপুর সাড়ে ১২টায় মেছুয়া বাজার পরিদর্শন করেন। 

এ সময় মেয়র ভাঙা সড়কসমূহের দ্রুত সংস্কার, শম্ভুগঞ্জ ব্রিজ টোলপ্লাজায় চারটি বুথ চালু রাখা এবং অতিরিক্ত গাড়ির চাপ সামলাতে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নির্দেশনা দেন। এছাড়াও নগরীর অটোবাইক, অটোরিকশা চলাচলে শৃঙ্খলা আনতেও বিভিন্ন নির্দেশনা দেন মেয়র।
 
তিনি আরও বলেন, যানজট নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতোমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। তবে এটাকে একেবারে সহনীয় পর্যায়ে আনতে আমরা সবাইকে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রাশাসন, মালিক সামিতি, শ্রমিক ইউনিয়নসহ এই জায়গাগুলো পরিদর্শন করেছি। স্বেচ্ছাসেবক নিযুক্ত করা এবং পুলিশি কার্যক্রম আরও বৃদ্ধির মাধ্যমে ঈদ উপলক্ষ্যে যানজট যেন না হয় তার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

মেয়র টিটু আরও জানান, সিটি করপোরেশনে চলাচলকারী অটোবাইক, অটোরিকশা, মিশুক, চিকনচাকার রিকশা নির্ধারিত জোড় বিজোড় তারিখ না মেনে চলাচল করলে জরিমানা করা হবে, লাইসেন্স বিহীন এ ধরনের কোনো যান পাওয়া গেলে তা বাজেয়াপ্ত করা হবে এবং কেউ জাল লাইসেন্স প্লেট ব্যবহার করে চালালে সেই যান বাজেয়াপ্ত করার সঙ্গে ফৌজদারি ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হবে। আগামী ৫ এপ্রিল থেকে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

মেছুয়া বাজারে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও সরকার নির্ধারিত মূল্যে পণ্য বিক্রি পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক মোস্তাফিজার রহমান বলেন, রমজানকে ঘিরে সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতি একাধিকবার আমরা বৈঠক করেছি। সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন ও জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে। কোনো পণ্যের ঘাটতি নেই। আমরা ভোক্তাদের সঙ্গে কথা বলছি। ব্যবসায়ীদেরও মোটিভেট করছি। তবুও কোথাও কোনো ব্যতিক্রম ঘটলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা বলেন, যানজট নিরসনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বাস মালিক সমিতি এবং সিটি মেয়রের পক্ষ থেকে ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হয়েছে। আশা করছি যানজট সহনীয় পর্যায়েই থাকবে। মহাসড়কে চাঁদাবাজির ব্যাপারে পুলিশ সুপার বলেন, ঈদকে সামনে রেখে মহাসড়কে কোনো ধরনের চাঁদাবাজির চেষ্টা করলে পুলিশ কঠোর পদক্ষেপ নেবে। চাঁদাবাজদের পরিচয় যাই হোক, কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

এ সময় মসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইউসুফ আলী, কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, জেলা ডিবির ওসি সফিকুল ইসলাম, ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির কোচ বিভাগের সম্পাদক সোমনাথ সাহাসহ পরিবহন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর