March 3, 2024, 7:51 am

গাজীপুরে শিশু হত্যার দায়ে এক নারীর আমৃত্যু কারাদন্ড

Reporter Name
  • আপডেট Wednesday, August 2, 2023
  • 46 জন দেখেছে

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর :: গাজীপুরে শিশু হত্যায় ফাতেমা খাতুন (৩৬) নামের এক নারীর আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুর ৩টার দিকে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. আব্দুর রহমান এ রায় দেন। ফাতেমা খাতুন কাপাসিয়া উপজেলার বড়চালা গ্রামের মনির উদ্দিনের মেয়ে। নিহত ওই শিশুর নাম মিথিলা ময়েজ (১)। সে একই এলাকার দুবাই প্রবাসী ময়েজ উদ্দিনের মেয়ে। আদালতের অতিরিক্ত পিপি মো. আতাউর রহমান জানান, আসামিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

তিনি আরো জানান, ২০০৭ সালে ১৬ জুলাই মোসা. নেলি বেগম মিথিলা ময়েজকে ভাগিনী শান্তার কাছে রেখে কেনাকাটা করার জন্য রাণীগঞ্জ বাজারে যান। বিকালে তার চাচাতো ননদ ফাতেমা খাতুন, শান্তা ও মিথিলা ময়েজকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে কাপাসিয়া বাজারে যান। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে রাওনাট গ্রামে সরকার বাড়ি পুকুরের কাছে গিয়ে কোলে থাকা মিথিলা ময়েজসহ শান্তাকে ধাক্কা দিয়ে পুকুরের পানিতে ফেলে দেয় ফাতেমা। পরে শান্তার ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে তাদের পানি থেকে উদ্ধার করে।

পরে ফাতেমা খাতুন রাতে মিথিলা, শান্তা ও ফারজানাকেসহ তার দুর সম্পর্কের আত্মীয় নয়ন মিয়ার বাড়িতে রাত্রি যাপন করে। রাতের কোনো এক সময়ে মিথিলা ময়েজকে ঘুম থেকে তুলে রাওনাট গ্রামস্থ সরকার বাড়ির পুকুরের পানিতে ফেলে দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান ফাতেমা খাতুন। পরদিন ১৭ জুলাই মিথিলা ময়েজকে মৃত অবস্থায় পুকুরের পানি থেকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহত শিশুর মা মোসা. নেলি বেগম বাদী হয়ে ওই বছরের ১৭ জুলাই কাপাসিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাপাসিয়া থানার এসআই একে আজাদ একমাত্র আসামি ফাতেমা খাতুনকে অভিযুক্ত করে ২০০৮ সালের ১০ ফেব্রুয়ারী আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। শুনানির পর ৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ দীর্ঘ ১৬ বছর পর বুধবার এ ঘোষণা করা হয়।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর