May 21, 2024, 1:54 am

‘অবৈধ’ সিদ্ধান্ত না নিতে নিপুণকে জায়েদ খানের নোটিশ

Reporter Name
  • আপডেট Sunday, April 2, 2023
  • 221 জন দেখেছে

বিনোদন ডেস্ক :: ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে জায়েদ খান ও নিপুণ আক্তারের দ্বন্দ্বের এখনও চূড়ান্ত সুরাহা হয়নি। পদটি নিয়ে আদালতের চূড়ান্ত রায় না এলেও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন নিপুণ। সেই দায়িত্ব বলে তিনি জায়েদ খানের সদস্যপদ স্থগিতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। গেলো ২২ ফেব্রুয়ারি লিখিত নোটিশ পাঠানো হয় জায়েদের ঠিকানায়।

যেখানে বলা হয়, নিপুণকে নিয়ে ‘মানহানিকর’ বক্তব্য দিয়েছেন তিনি। এ কারণে সমিতির গঠনতন্ত্রের ৭(ক) ধারা মোতাবেক তার সদস্যপদ স্থগিতের কথা ভাবছে সংগঠন। বিষয়টি নিয়ে আজ রবিবার (২ এপ্রিল) সংবাদ সম্মেলন করার কথা রয়েছে। তার আগেই নিপুণ আক্তারকে লিখিত জবাব দিলেন জায়েদ খান। রবিবার (২ এপ্রিল) সকালে পাঠানো সেই জবাবে, নিপুণের ‘বেআইনি’ বলে দাবি করেছেন জায়েদ। শুধু তাই নয়, এমন নোটিশ প্রদানকে ‘সর্বোচ্চ আদালত অবমাননা’ বলেও মনে করেন তিনি।

জায়েদ খান তার জবাবে জানান, তিনি পেশাগত কাজে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশের বাইরে গিয়েছিলেন। ফিরেছেন গত ৬ মার্চ। কিন্তু এর ফাঁকে ২২ ফেব্রুয়ারি তার ঠিকানায় ‘অবৈধ’ নোটিশটি পাঠানো হয়। যা আরো অনেক পরে, ৩১ মার্চ হাতে পান বলে দাবি এ নায়কের।

হাইকোর্ট নয়, নিপুণকে সুপ্রিমকোর্ট দেখিয়ে জায়েদ খান বলেছেন, সাধারণ সম্পাদক পদটির বৈধতা নিয়ে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় আপনার নিজেকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক দাবি করে উক্ত নোটিশ ইস্যু করা সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অবমাননার সামিল। বিচারাধীন মামলাটি ‘ফ্রাস্ট্রেট’ করার অসৎ উদ্দেশ্যে উক্ত ২২ ফেব্রুয়ারি নোটিশটি ইস্যু করা হয়েছে। আমার সদস্যপদ নিয়ে যে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত অবমাননার সামিল। উক্ত অবৈধ নোটিশের প্রেক্ষিতে গৃহীত যে কোনো ধরনের অবৈধ কার্যকলাপের সঙ্গে সম্পৃক্ত সকলে দেশের সর্বোচ্চ আদালত অবমাননার জন্য ব্যক্তিগতভাবে দায়ী হবেন।

অভিযোগ নিয়ে জায়েদের ব্যাখ্যা, সংগঠনের উদ্দেশ্যাবলীর পরিপন্থী, স্বার্থের বিরুদ্ধে বা অবমাননাকর কোনো কার্যের সঙ্গে আমি কখনো সম্পৃক্ত ছিলাম না বিধায় তথাকথিত ২২ ফেব্রুয়ারি তারিখের কারণ দর্শানোর নোটিশটি উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং বেআইনি।

চিঠির শেষ অংশে নিপুণকে ‘বিতর্কিত, অবৈধ, মানহানিকর ও আদালত অবমাননাকর’ কোনো কার্যক্রম গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন জায়েদ খান। অন্যথায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন সংগঠনটির সাবেক এই সাধারণ সম্পাদক। চিঠির শুরুতে ‘বরাবর নিপুণ আক্তার’ লিখলেও, পদের স্থলে সচেতন জায়েদ খান উল্লেখ করেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘আর্টিস্ট রুম’-এর একজন হিসেবে!

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর