April 22, 2024, 1:18 pm

হবিগঞ্জে মুয়াজ্জিন ইরফান আলীর হত্যাকারীদের ফাসির দাবিতে বিশাল মানববন্ধন- স্বারকলিপি 

Reporter Name
  • আপডেট Tuesday, May 2, 2023
  • 255 জন দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :: হবিগঞ্জের মাধবপুর থানার রসুলপুর সুন্নতি জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন মুহম্মদ ইরফান আলী’র হত্যাকারীদের ফাসির দাবিতে গতকাল সোমবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিশাল মানববন্দন-মিছিল ও স্বারকলিপি দেয়া হয়।খবর নিয়ে জানাযায় গত পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন বাড়ীর পাশের রাস্তাদিয় উচ্চসরে গাড়ীতে স্পিকার বক্স দিয়ে অস্লিল গান বাজনার প্রতিবাদ করেন মুয়াজ্জিন মুহম্মদ ইরফান আলী।তিনি বলেন বাড়ীর পাশেই সুন্নতি জামে মসজিদ।এছাড়াও রাস্তার পাশের বাড়ীতে একজন বয়স্ক লোক অসুস্থ। এরপরেও আজ সম্মানিত পবিত্র ঈদের দিন। আপনারা সাউন কমান। সেই মুহুর্তে গাড়ীতে থাকা লোকজন নেমে ইরফান আলীর উপর নির্মম ভাবে মারতে থাকে।একপর্যায়ে ইরফান আলী মাটিতে লুটিয়ে পরে।হাসপাতালে নেওয়ার পথে মুয়াজ্জিন মুহম্মদ ইরফান আলী মারা যান।আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার-সঠিক বিচার এবং সাত-দফা দাবি তুলে ধরেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ-১ মুয়াজ্জিন শহীদ মুহম্মদ ইরফান আলী রহমতুল্লাহি আলাইহির সকল খুনিকে অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে।২.এক মাসের মধ্যে মামলার চার্জশিট দিতে হবে এবং দ্রুত বিচার আইনে ৩ মাসের মধ্যে খুনের বিচারকার্য শেষ করতে হবে এবং প্রত্যেক খুনির ফাঁসি নিশ্চিত করতে হবে ।৩. পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি শহীদ মুয়াজ্জিন ইরফান আলীর মৃত্যু হওয়ায় তার পরিবারকে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে কমপক্ষে ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। একইসাথে ইরফান আলীর সন্তানদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।৪. শহীদ মুয়াজ্জিন ইরফান আলীর স্মৃতি সংরক্ষণে উনার নামে হবিগঞ্জে একটি মসজিদ প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

৫. উচ্চশব্দে গান-বাজনা বন্ধ করতে চলমান আইন অত্যন্ত দুর্বল। তাই উচ্চশব্দে গান বাজনা বন্ধ করতে রাষ্ট্রকে আরো শক্তিশালী ও কার্যকরী আইন প্রণয়ন করতে হবে।৬. ইমাম, খতিব মুয়াজ্জিনরা সর্বদা মানুষকে নৈতিক শিক্ষা দান করে সমাজকে বিশুদ্ধ রাখে। কিন্তু এ শিক্ষা দানে অনেক সময় অনৈতিকতার চর্চাকারীরা অসন্তুষ্ট হয় এবং নানান উপায়ে ইমাম, খতিব মুয়াজ্জিনদের হেনস্তা করার চেষ্টা করে। এই হেনস্তা বন্ধ করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইমাম, খতিব, মুয়াজ্জিনদের সব রকম নিরাপত্তা দানের ব্যবস্থা করতে হবে।৭. নৈতিকতা চর্চা হ্রাসের কারণে সমাজে সন্ত্রাস, সুদ, ঘুষ, খুন, মারামারি, নারী নির্যাতন, মাদক, কিশোর গ্যাং সহ যাবতীয় অপরাধ বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কারণে সামান্য গান-বাজনাকে কেন্দ্র করে একজন বৃদ্ধ মুয়াজ্জিনকে হত্যা করতে মানুষের হাত কাঁপছে না। এ পরিস্থিতি উত্তরণে পাঠ্যপুস্তকসহ সর্বত্র ‘দ্বীন ইসলাম; ভিত্তিক নৈতিকতার চর্চা বৃদ্ধি করতে স্বারক লিপিতে উল্লেখ করেন।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর