March 2, 2024, 11:48 pm

বাংলাদেশের গণতন্ত্র নির্বাচনের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে ফেলা হয়েছে : অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক

Reporter Name
  • আপডেট Saturday, August 26, 2023
  • 37 জন দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা :: গণতন্ত্র মানে শুধুমাত্র নির্বাচন বা সরকার পরিবর্তন কিংবা জনপ্রতিনিধি নির্বাচন নয় জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক বলেছেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্র নির্বাচনের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে ফেলা হয়েছে।’ আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ভাষা আন্দোলনের প্রথম কারাবরণকারী সম্পাদক দি বাংলাদেশ অবজারভারের সাবেক সম্পাদক মরহুম আবদুস সালামের ১১৩ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সাংবাদিক আবদুস সালাম স্মৃতি সংসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

আবুল কাশেম ফজলুল হক বলেন, ‘বাংলাদেশের রাজনীতির মান উন্নত হয়নি। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে নির্বাচনের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে ফেলা হয়েছে। সে কারণেই তরুণ প্রজন্মের মধ্যে রাজনীতি বিমুখতা তৈরি হয়েছে। আমাদের দেশের ছাত্ররা আজকে বলছে আই হেইট পলিটিকস। এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা কথা। কেন ছাত্ররা আজ রাজনীতি ঘৃণা করছে তা বিশ্লেষণ জরুরি।’ 

সাংবাদিক আবদুস সালাম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আবদুস সালামের লেখার জন্য পত্রিকা বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনাও ঘটেছে। সর্বজনের কল্যাণে কাজ করার জন্যই তিনি সাংবাদিকতায় এসেছিলেন। তিনি জাতি এবং রাষ্ট্রের কল্যাণেই সব সময় লিখেছেন। সভায় আবদুস সালামের নাতনি মরিয়ম সুলতানা বলেন, ষাটের দশকে আবদুস সালামের সম্পাদকীয় পড়ে অনেকে ইংরেজি শিখত। কোথাও গেলে ইংরেজিতে কথা বলতে খুব ভয়ে থাকতাম। কোথাও ভুল হলে সবাই চেপে ধরত। 

আবদুস সালামের মেয়ে ও স্মৃতি সংসদের সভাপতি রেহানা সালাম বলেন, ‘স্মরণ অনুষ্ঠান না করলেও কিছু যায় আসে না। কিন্তু আমরা কি তরুণ প্রজন্মকে সাংবাদিকতা কি, কেন তা বোঝাতে পেরেছি? একজন সাংবাদিক চাঁদাবাজ হতে পারে, সরকারি একটা প্লটের জন্য বিবেক বিক্রি করে দিতে পারে। এমন সাংবাদিকতা যেন না হয় এই উপলব্ধি থেকে আবদুস সালাম, মানিক মিয়াদের আদর্শ তুলে ধরতে অনুষ্ঠানগুলো করছি।’ 

সভায় সভাপতির বক্তব্যে দি বাংলাদেশ অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, ‘আবদুস সালাম দেশ, রাজনীতি, সাংবাদিকতা সবকিছু নিয়েই আলোকপাত করে গেছেন। কিন্তু আমরা কি তাঁর যোগ্য উত্তরসূরি হতে পেরেছি? না পারলে আমরা তাঁদের কীভাবে শ্রদ্ধা জানাব? আজকে যেখানে রাজনীতি দুর্বৃত্তায়ন, দুর্নীতি আর পেশিশক্তির সেখানে সাংবাদিকতা বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হিসেবে থাকবে তা প্রত্যাশিত নয়।’ 

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন—বাসসের সাংবাদিক তানভীর আলাদিন, আইনজীবী শহীদুল্লাহ মজুমদার, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি কাজী রফিক, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, সভাপতি এম আবদুল্লাহ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম, বর্তমান সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন প্রমুখ।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর