April 22, 2024, 12:27 pm

শিক্ষার কোন বিকল্প নেই শিক্ষার্থীরাই দেশ ও জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধার : আবুল কালাম আজাদ

Reporter Name
  • আপডেট Saturday, March 2, 2024
  • 65 জন দেখেছে

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি :: কুমিল্লা-৪ দেবিদ্বার আসনের সংসদ সদস্য মো. আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, সততা, নৈতিকতা, দেশপ্রেম, পরোপকার এবং আদর্শ চরিত্রবান মানুষ হওয়ার মূল ভিত্তি হলো সুশিক্ষা। উন্নত জাতি গঠন ও মানবসম্পদ উন্নয়নের গুণগত শিক্ষার গুরুত্ব সর্বাধিক। আর এ নৈতিক দায়িত্বটুকু পালন করছেন শিক্ষকরা। শিক্ষকরাই শিক্ষাঙ্গনে ইতিবাচক শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার পথ তৈরি করে দেন। আজ শনিবার (২ মার্চ) দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার উদ্যােগে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
দেবিদ্বার উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মিনহাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরোও বলেন, আপনারা অনেক দাবির কথা বলেছেন, আমি আপনাদের দাবিগুলো মহান সংসদে উপস্থাপন করার চেষ্টা করব। দেবিদ্বারে অনেক বিদ্যালয়ের ভবন ঝুঁকিপূর্ণ, আমি চেষ্টা করব যে ভবনগুলো অত্যাধিক ঝুঁকিপূর্ণ সেগুলো নতুন ভবন তৈরী করার জন্য। পর্যায়ক্রমে সবগুলো ঝুঁকিপূর্ণ ভবন নির্মাণ করা হবে।
তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্য বলেন, আপনারা বিদ্যালয়ে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি করুন, মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করুন। দেশে উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যাপ্ত আছে, অভাব শুধু গুণগত বা মানসম্মত শিক্ষার। শিক্ষার মান বাড়বে শিক্ষকদের গুণে। শিক্ষার মান উন্নত করতে শিক্ষকের ভূমিকাই সর্বাধিক অগ্রগণ্য। অভিভাবকদের সচেতন করার দায়িত্বও শিক্ষকদের। শিক্ষকের দায়িত্ব পালনের জন্য শিক্ষককে আন্তরিক হতে হবে। শিক্ষক দরদি মন নিয়ে শিক্ষা দিতে হবে। আপনারাই সমাজের পরিবর্তন করতে পারবেন, শ্রেণিকক্ষে শিক্ষকদের আধুনিক পদ্ধতিতে নিয়মিত ও যথাযথ পাঠদান ও শিক্ষাদানের সক্ষমতা, কৌশল ও নৈপুণ্যের ওপর নির্ভর করবে শিক্ষার গুণগত মান ও মানসম্মত শিক্ষা। যেকোনো দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যাওয়ার জন্য মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই। শিক্ষা যদি জাতির মেরুদণ্ড হয় তাহলে শিক্ষকরা সে মেরুদণ্ডের নির্মাতা। নৈতিক বিচারে শিক্ষকতার চেয়ে সম্মানিত ও মর্যাদাপূর্ণ পেশা আর নেই। তাই মানসম্মত শিক্ষাদানের জন্য প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও দক্ষতাসম্পন্ন শিক্ষক দ্বারা সব শিক্ষার্থীর শিক্ষাদান নিশ্চিত করতে হবে। আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা পেলে দেবিদ্বারকে স্মার্ট দেবিদ্বার গড়ে তোলা সম্ভব।
উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মো. আবদুর রহমান ও সহকারি শিক্ষক নাজমুল হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও) নিগার সুলতানা, দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মো. লুৎফর রহমান বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসা. সুফিয়া বেগম, কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবলীগ নেতা মো. মামুনুর রশিদ মামুন, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সদস্য হাজী তুহিন, কুমিল্লা উত্তর জেলা ন্যাপের সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকুর রহমান (ফুল মিয়া), উপজেলা মৎসজীবিলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন টিটু, পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মুজিবুর রহমান, গুনাইঘর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোকবল হোসেন মুকুল, দেবিদ্বার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাহেলা মজুমদার, ভৈসেরকুট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাসলিমা আক্তার সাথী, গোপালনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক মো. জাকারিয়া, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আসাদুর রহমান রনি প্রমুখ।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর