March 1, 2024, 9:19 am

২০২৬ সালে বিশ্বকাপ ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে নিউ ইয়র্কে

Reporter Name
  • আপডেট Monday, February 5, 2024
  • 20 জন দেখেছে

দৈনিক বিজয়বাংলা নিউজ ডেস্ক :: ২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে নিউ ইয়র্কের মেটলাইফ স্টেডিয়ামে। ফিফার পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়েছে। ১৯ জুলাই ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যু হিসেবে ডালাস ও নিউ ইয়র্ক এগিয়ে ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিউ ইয়র্ককে ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠানের স্বত্ব দেয়া হয়েছে। এই প্রথমবারের মত বর্ধিত কলেবরে ৪৮ দল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোতে যৌথভাবে বিশ্বকাপ আয়োজিত হবে। ২০২৬ সালের ১১ জুন মেক্সিকো সিটির আইকনিক আজটেকা স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।
ফিফা প্রেসিডেন্ট গিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেছেন, ‘ইতিহাসে সবচেয়ে অন্তর্ভূক্তি মুলক ও প্রভাব বিস্তার করা বিশ^কাপ আয়োজন এখন আর স্বপ্ন নয়। কানাডা, মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্রের ১৬টি প্রদেশে ১০৪টি ম্যাচ দেখার অপেক্ষা এখন বাস্তবে রূপ পেতে যাচ্ছে। আইকনিক এস্তাদিও আজটেকার উদ্বোধনী ম্যাচ থেকে নিউ ইয়র্কের ফাইনাল, খেলোয়াড়, সমর্থকরা এখন আমাদের পরিবর্তিত টুর্নামেন্টের দীর্ঘদিনের পরিকল্পনা অংশ। তারা শুধুমাত্র নতুন রেকর্ডের দাবীদার হচ্ছেনা বরং একটি অদম্য উত্তরাধিকার রেখে যাচ্ছে।’
আটালান্টার ডালাসে সেমিফাইনাল ও মিয়ামিতে অনুষ্ঠিত হবে তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচ। কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচগুলো হবে লস এ্যাঞ্জেলেস, কানসাস সিটি, মিয়ামি ও বস্টনে। তিন দেশের সর্বমোট ১৬টি শহরে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। বেশীরভাগ ম্যাচই আয়োজিত হবে যুক্তরাষ্ট্রে। এর আগে ১৯৯৪ সালের বিশ^কাপ যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ঐ আসরে ফাইনাল ম্যাচ আয়োজিত হয়েছিল লস এ্যাঞ্জেলেসের কাছাকাঝি পাসাডেনার রোস বোলে। নিউ ইয়র্কের ম্যাচগুলো পুরোনো জায়ান্ট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরবর্তীত তা সংষ্কার করে মেটলাইফ নাম দেয়া হয় যা ২০১০ সালে উন্মুক্ত করা হয়। এই স্টেডিয়ামের ধারণক্ষমতা সাড়ে ৮২ হাজার। ২০১৬ কোপা আমেরিকার ফাইনালও এই স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ডালাসের এটি এন্ড টি স্টেডিয়ামে সর্বোচ্চ ৯টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।
মেক্সিকো সিটির আজটেকার স্টেডিয়াম বিশ^কাপের ইতিহাসে প্রথম ভেন্যু হিসেবে তিনটি ভিন্ন আসরে ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে। এর আগে ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালেও এখানে বিশ^কাপ আয়োজিত হয়েছিল। এই দুই টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ এই স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩২ দল থেকে ৪৮ দলে বর্ধিত করায় বাড়তি ২৪টি ম্যাচ ২০২৬ বিশ^কাপে অনুষ্ঠিত হবে। চারটি দল ১২টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে অংশ নিবে। প্রতিটি দলের শীর্ষ দুই দলের সাথে তৃতীয় স্থানে থাকা সেরা আটটি দল নক আউট পর্বে যাবে।
২০২৫ সালের শেষে টুর্নামেন্টের ড্র অনুষ্ঠানের আশা করা হচ্ছে।
টুর্ণামেন্ট আয়োজনের ১৬টি স্বাগতিক শহর হলো : আটালান্টা, বোস্টন, ডালাস, গুয়াডালায়ানা, হাউসস্টোন, কানসাস সিটি, লস এ্যাঞ্জেলেস, মেক্সিকো সিটি, মিয়ামি, মন্টিয়ারি, নিউ ইয়র্কÑনিউ জার্সি, ফিলাডেলফিয়া, সান ফ্রান্সিসকো বে এরেনা, সিটেল, টরেন্টো ও ভ্যানকুভার।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর