May 24, 2024, 8:00 am

সিটি নির্বাচনে যারা দায়িত্বে অবহেলা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ::
  • আপডেট Saturday, June 3, 2023
  • 79 জন দেখেছে

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, গাজীপুর সিনি নির্বাচনে যারা দায়িত্বে অবহেলা করেছে তাদের বিরুদ্ধে দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। কারা দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেনি তাদের তালিকাও তৈরি করা হচ্ছে। শুক্রবার বিকেলে মহানগর আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরবর্তী মূল্যায়ন সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মহানগরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার বাসন থানা আওয়ামী লীগ অফিসে এ মূল্যায়ন সভার আয়োজন করা হয়।
মন্ত্রী বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনে ৩৫ লাখ লোক বসবাস করে। আমাদের পর পর তিনটা নির্বাচন হয়ে গেল। প্রথম নির্বাচন সেটা একটা দেশব্যাপী বিরাট ইস্যু হয়েছিল। আমাদের তখন প্রতিকুল অবস্থা ছিল। ২০১৩ সালে আমরা জিততে পারি নাই। যারা দায়িত্ব পেয়েছে তারা জনগেনের কাজ করতে পারেনি। ব্যর্থতা আর অভিযোগে, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে এই সমস্ত অভিযোগে অভিভাবকহীন ছিলো গাজীপুর সিটি করপোরেশন। পরে যাকে আমরা নির্বাচিত করলাম দলের মনোনিত প্রার্থী ছিলেন তিনি এমন কিছু কাজ করলেন দল তাকে অব্যাহতি দিয়ে দিলো এবং তাকে বরখাস্ত করা হলো। সরকারি অর্থ তার বিরুদ্ধে আত্নসাতের অভিযোগ রয়েছে। তিনি নিজেই বলেছিলেন প্রধান মন্ত্রী গাজীপুরে সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছিলেন। সেই টাকার উন্নয়নের সুফল গাজীপুরবাসী পায়নি।
তিনি বলেন, গত ১০ বছর যাবত যে উন্নয়ন গাজীপুরবাসী পেত তা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। সরকারের একটা বিধান আছে সব সিটি করপোরেশনে উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ থাকে। সেই উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কোথাও জনপ্রতিনিধি আছে, কোথাও সরকারি কর্মচারী আছে। আজমত উল্লা খানের স্থানীয় সরকার পরিচালনায় ব্যাপক অভিজ্ঞতা আছে। যার এতো দক্ষতা, যার এতো সততা আছে, তাকে যদি গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব দেয়া হয় তবে নগরীর বঞ্চিত ৩৫ লাখ লোকের উন্নয়ন করতে পারবেন।
আজমত উল্লা খান বলেন, আমাদের এখন থেকেই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হতে হবে। আমরা কে কি করলাম সেটি বড় কথা নয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি আগামী নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী না হতে পারেন। আমরা অনেক কিছু হয়েও লাভ কি হবে? ষড়যন্ত্র চলছে। ৭৫ এর আগে যেমন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হয়েছিল। এবারও আপনারা লক্ষ্য করতে পারছেন দেশে এবং বিদেশে সেই চক্র কাজ করছে। আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ হই। আমি আবারও বলি আমাকে আপনারা আরো দুঃখ দেন। আমার কোনো আপত্তি নেই। কষ্ট দেন আপত্তি নাই। বুক চাপা কান্না করান আপত্তি নাই। পায়ে হাত দিয়ে বলি দয়া করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা বলে নেত্রীকে কোনো দুঃখ দিবেন না। নেত্রীকে যদি কষ্ট দেন আল্লাহ একজন আছেন, তিনি অবশ্যই আপনাদের উপরে গজব নাজিল করবেন। তাই শেখ হাসিনাকে কোনো কষ্ট বা দুঃখ দিবেন না।
বাসন থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল বারির সভাপতিত্ব ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেমের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লা খান, আফজাল হোসেন সরকার রিপন, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল, মোকছেদ আলম প্রমুখ।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর