May 21, 2024, 1:28 am

মাছ-মাংস-সবজি সবকিছুর দামে আগুন!

Reporter Name
  • আপডেট Friday, September 8, 2023
  • 46 জন দেখেছে

দৈনিক বিজয়বাংলা নিউজ ডেস্ক :: মাছ, মাংস, সবজিসহ নিত্যপণ্যের বাজারে নেই স্বস্তি। সবকিছুর দামে যেন আগুন জ্বলছে! বাজারদর নিয়ে ক্রেতাদের অনুভূতি এমনই। আজ শুক্রবার সরেজমিনে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে, প্রতিকেজি দেশি রুই ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, চাষের রুই ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা, বোয়াল এক হাজার থেকে ১২০০ টাকা, ট্যাংরা এক হাজার থেকে এক হাজার ১০০ টাকা, দেশি শিং ৯০০ থেকে এক হাজার ১০০ টাকা, চাষের শিং ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, পাবদা ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা, মলা মাছ ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা, পাঙ্গাস ২০০ থেকে ২২০ টাকা, তেলাপিয়া ২০০ থেকে ২২০ টাকা, ইলিশ (আকারভেদে) এক হাজার ৫০০ থেকে এক হাজার ৮০০ টাকা, ৩০০ থেকে ৪০০ গ্রামের ওজনের ইলিশের ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

রামপুরা বাজারের মাছ কিনতে আসা আলেক বলেন, গত সপ্তাহে পাবদা মাছের কেজি কিনেছি ৫০০ টাকায়। আর আজকে ৬০০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। এরকম যদি প্রতি সপ্তাহে মাছের দাম বাড়ে আমরা কোথায় যাবো!

রামপুরা বাজারে শাকিল নামে এক মাছ বিক্রেতা বলেন, আড়ৎদারদের কাছ থেকে আমরা বেশি দামে কিনে আনছি মাছ। তাই বেশি দামে আমরাও বিক্রি করছি। তিনি বলেন, আগের চেয়ে তোলনামূলক মাছের সংকট থাকায় দাম একটু বেশিই।

সবজি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিকেজি করলা থেকে ৮০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪৫ টাকা, পটল ৬০ টাকা, পেঁপে ৪০ টাকা, ধুন্দুল ৬০ টাকা, মুলা ৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৮০ টাকা, লম্বা বেগুন ৭০ টাকা, গোল বেগুন ১০০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, শসা ৬০ টাকা, ভারতীয় টমেটো ১২০ টাকা, কচুর লতি ৮০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা, কাঁচামরিচ ১৪০ টাকা, কচুরমুখি ৮০ টাকা, আলু ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া আকারভেদে প্রতিটি লাউ ৫০ থেকে ৭০ টাকা, চাল কুমড়া ৫০ টাকা, লেবুর হালি ১৫ থেকে ২০ টাকা, কাঁচা কলার হালি ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

শান্তিনগর এলাকার সবজি বিক্রেতা অনিক বলেন, শীতের মৌসুম না থাকায় সবজির সরবরাহ কম থাকায় ঢাকা সবজি একদম কম আসছে। ফলে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

মাংসের বাজারে ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির ১৮০ টাকা, সোনালি মুরগি ৩১০ টাকা, লেয়ার মুরগি ৩৪০ টাকা, দেশি মুরগি ৪০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতিকেজি গরুর মাংস ৭৫০ থেকে ৭৮০ টাকা ও খাসির মাংস এক হাজার থেকে এক হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্যদিকে প্রতি ডজন ফার্মের ডিম ১৫০ টাকা, দেশি মুরগির ডিম ২১০ থেকে ২২০ টাকা, হাঁসের ডিম ২৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মুদি দোকান ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ৮৫ থেকে ৯৫ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ৬০ টাকা, আদা ২০০ টাকা, চায়না আদা ২২০ টাকা, খোলা চিনি ১৪০ টাকা, খোলা আটা ৫৫ থেকে ৬০ টাকা, প্যাকেট আটা ৬৫ টাকা, দুই কেজির প্যাকেট আটা ১১০ টাকা, দেশি মসুরের ডাল ১৪০ টাকা, লবণ ৩৮ থেকে ৪০ টাকা, ইন্ডিয়ান মসুর ডাল ৯৫ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৭৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর