June 23, 2024, 11:02 pm

ঢাকায় চার দিন সমাবেশ–পদযাত্রা করবে গণতন্ত্র মঞ্চ 

Reporter Name
  • আপডেট Monday, September 18, 2023
  • 52 জন দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা :: সরকারের পদত্যাগ ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের এক দফা দাবিতে বিএনপিসহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের চলমান যুগপৎ আন্দোলনের অংশ হিসেবে চার দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেছে গণতন্ত্র মঞ্চ। আজ সোমবার পল্টনের দারুস সালাম ভবনে জোটের অন্যতম শরিক দল ভাসানী অনুসারী পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচির ঘোষণা দেয় তারা। 

সংবাদ সম্মেলনে যুগপৎ আন্দোলনের সমাবেশ-পদযাত্রার কর্মসূচির বাইরে জোটের নিজস্ব কর্মসূচিও ঘোষণা করে গণতন্ত্র মঞ্চ। এ সময় নিজস্ব উদ্যোগে চারটি সেমিনার করার ঘোষণা দিয়েছে রাজনৈতিক জোটটি। 

লিখিত বক্তব্যে কর্মসূচি ঘোষণা করে ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, ১৯ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় মতিঝিলের বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে সমাবেশ ও পদযাত্রা, ২৩ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টায় কারওয়ান বাজারে পেট্রোবাংলার সামনে সমাবেশ ও পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। ২৫ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টায় খিলগাঁও তালতলা মার্কেটের সামনে সমাবেশ ও পদযাত্রা এবং ২৭ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ ও পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। 

এসব কর্মসূচি ছাড়াও আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত গণতন্ত্র মঞ্চের উদ্যোগে ‘সংবিধানের দোহাই দিয়ে একতরফা নির্বাচনের পাঁয়তারা কেন অসাংবিধানিক নয়?, ‘বিদ্যমান রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে অন্তর্বর্তী সরকারের প্রয়োজনীয়তা’, ‘গণতান্ত্রিক ও জবাবদিহিমূলক রাষ্ট্র ও সমাজ নির্মাণে বিদ্যমান অগণতান্ত্রিক সংবিধান বড় বাধা’ ও ‘আগামীর বাংলাদেশ সংস্কারের ৩১ দফার আবশ্যকতা’-শীর্ষক চারটি সেমিনার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু। 

সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘মানুষের উত্থান হয়েছে। ক্ষমতাকে আঘাত করা কিংবা ক্ষমতা ছিনিয়ে নেওয়ার পর্যায়ে এখনো যায়নি। কিন্তু দিন দিন আন্দোলন শক্তিশালী হচ্ছে। গণ-আন্দোলন গণ-অভ্যুত্থানের দিকে রূপ নেওয়ার পথেই এগোচ্ছে।’

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, ‘আমরা এখনো কোনো বিক্ষোভ, ঘেরাও, অবরোধ কর্মসূচিতে যাইনি। হরতালের মতো কর্মসূচিতেও যাইনি। প্রয়োজনে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের এই সব উপায়ই গ্রহণ করা হবে।’ 

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ুম বলেন, ‘এই সরকারের সঙ্গে সংলাপ হতে পারে যদি এই সরকার পদত্যাগের ঘোষণা দেয়। সরকার পদত্যাগের ঘোষণা দিলে পরবর্তী অন্তর্বর্তী সরকার কীভাবে হবে তা সহ অন্যান্য বিষয়ে অবশ্যই আলোচনা হবে।’ 

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন প্রমুখ।

সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও খবর